ব্রেকিং

তামিমকে ধীরে খেলতে বলেছিলেন সৌম্য

| বুধবার, ০৮ মে ২০১৯

তামিমকে ধীরে খেলতে বলেছিলেন সৌম্য

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে এশিয়ার বাইরে ১৪৪ রানের সর্বোচ্চ জুটির রেকর্ড গড়েছেন সৌম্য সরকার এবং তামিম ইকবাল। তাদের ব্যাটে সহজে জয়ের পথে চলে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। পরে সাকিব আল হাসান ফিফটি করে এবং মুশফিকুর রহিম ভালো এক ইনিংস খেলে দলের জয় নিশ্চিত করেন।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের ওপেনিং চিন্তায় তামিমের সঙ্গী লিটনকেই ভাবা হয়েছে। সৌম্য সরকার এই ইনিংস খেলে ওপেনারের বড় দাবিদার হয়ে উঠেছেন। ঘরের মাঠে শেষ দুই ঘরোয়া ম্যাচে সেঞ্চুরি। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেঞ্চুরি তার পক্ষেও কথা বলছে।

বাংলাদেশের ইনিংস থেকে দেখা গেছে তামিমের চেয়ে সৌম্য বেশি সহজে ব্যাটিং করেছেন। দারুণ জুটি গড়ার পথে সৌম্য ৬৮ বলে খেলেছেন ৭৩ রানের ইনিংস। আর তামিম সঙ্গ দিয়ে জুটিতে অবদান রাখেন ৮৬ বলে ৬০ রান করে। সৌম্য সরকার শুরু থেকেই একশ’র কাছাকাছি স্ট্রাইক রেট নিয়ে খেলেছেন।

তামিমের সঙ্গে নিজের জুটি এবং ব্যাটিং পরিকল্পনা নিয়ে সৌম্য বলেন, ‘এক সময় ভেবেছিলাম আমাদের তিনশ’ রান তাড়া করে খেলতে হবে। পরে অবশ্য আমরা দারুণভাবে ম্যাচে ফিরে আসি। এরপর আমাদের পরিকল্পনা ছিল সাবধানী শুরু করা। উইকেট সহজ ছিল না। শট খেলা কঠিন ছিল। ব্যাক অব দ্য লেন্থের বল সহজে খেলা গেছে। তবে ফুল লেন্থের বল খেলা ছিল কঠিন।’

জুটি গড়ে খেলার ব্যাপারে সৌম্য বলেন, ‘জুটি গড়ার লক্ষ্য নিয়ে নেমেছিলাম। যাতে করে আমরা ম্যাচের নিয়ন্ত্রন নিতে পারি। আমরা এক পর্যায়ে সেটা পেরেছিও। খুব একটা চাপ ছিল না। তামিম ভাই স্বাভাবিক খেলা খেলতে বলেছিলেন। আমিও তাকে বলেছি, “খেলা ঠিক আছে। পরে রান পাওয়া যাবে।” নিজেদের মধ্যে বলেছি যে, রানের জন্য আমরা কোন ঝুঁকি নেবো না।’

নিউজিল্যান্ডে ধবলধোলাই হওয়া বাংলাদেশ ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে জয়ে ফিরেছে। বৃহস্পতিবার তামিমরা মুখোমুখি হবে স্বাগতিক আয়ারল্যান্ডের। ওই ম্যাচের আগে টাইগাররা আত্মবিশ্বাসী বলে জানান সৌম্য, ‘জয় সবসময়ই আলাদা আত্মবিশ্বাস দেয়। আমরা এখন আস্থাশীল। আমরা কন্ডিশন নিয়ে ভাবছি না। এখান থেকে দলের সবাই সেরাটা দিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে চাই আমরা।’

Comments

comments

আপনার পছন্দের এলাকার খবর জানতে...

আর্কাইভ